ঢাকা, May 20, 2019, 4:38 a.m.

এইমাত্র বিসিবি থেকে বিশাল সুখবর পেল "ইমরুল কায়েস"

সিনিয়র রিপোর্টার

প্রকাশিত: April 17, 2019, 3:56 p.m.

নিউজটি মোট 25928 বার পঠিত হয়েছে

বাংলাদেশ জাতীয় দল টা যেন ইমরুল কায়েসের জন্য আত্মীয় বাড়ি। মাঝেমধ্যেই বেড়াতে আসেন। কিছুদিন আগেই গত বছরের অক্টোবরে জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে ওয়ানডে সিরিজে ৩৪৯ রান করেন ইমরুল। সর্বশেষ এশিয়া কাপে আফগানিস্তানের বিপক্ষে গুরুত্বপূর্ণ ম্যাচে খেলেন অপরাজিত ৭২ রানের ইনিংস, তাও ৬ নম্বরে নেমে।

এছাড়া ২০১৮ সালে বাংলাদেশের সেরা পাঁচ ব্যাটসম্যানের মধ্যে রানের হিসেবে চতুর্থ সেরা ছিলেন ইমরুল। আর সর্বো স্ট্রাইক রেট ছিল তারই দখলে। সৌম্য ফর্মে ফেরায় নিউজিল্যান্ড সফর থেকে বাদ পড়তে হয় ইমরুলকে। তাহলে কি অভিজ্ঞ ইমরুলকে বলির পাঁঠা বানানো হলো?

ইমরুলকে বাদ দেওয়ার পেছনে কারণ হিসেবে প্রধান নির্বাচক মিনহাজুল আবেদিন নান্নু বলেছেন, ওপেনিংয়ে ডান-বামহাতির কম্বিনেশন চেয়েছে টিম ম্যানেজম্যান্ট। সেকথা বিবেচনা করে তামিম ও সৌম্যর সঙ্গে লিটনকে নেওয়া হয়েছে। এ জন্য বাদ পড়েছে ইমরুল।

প্রধান নির্বাচকের কথা অনুযায়ী বাঁহাতি হওয়ার কারণেই কি তবে বাদ পড়লেন ইমরুল? তাহলে তামিম ও সৌম্য দুজনেই বাঁহাতি হয়েও ওপেনিং করেছেন কীভাবে? আর ইমরুল তো শুধু ওপেনিং নয়, নিচের দিকেও ব্যাট করতে পারেন। গত এশিয়া কাপেই সেই প্রমাণ তিনি রেখেছেন। অথচ শুরুতে তাকে দলেই রাখা হয়নি।

ওপেনিংয়ে তামিমের কোনো বিকল্প নেই। কিন্তু তার সঙ্গী হিসেবে কেউই স্থায়ী হতে পারেননি। সৌম্য সরকারকে দলে নেওয়া হয়েছে সাম্প্রতিক ফর্ম বিবেচনায়। তবে চলতি ঢাকা প্রিমিয়ার ডিভিশন ক্রিকেট লিগে কিন্তু সৌম্য এখনও আহামরি কিছু করে দেখাতে পারেননি।

তামিমের ওপেনিং সঙ্গী হিসেবে ভাবা হচ্ছে লিটন দাসকেও। আগ্রাসী ব্যাটিংয়ে নজর কেড়েছেন তিনি। ঘরোয়া ক্রিকেটেও দারুণ খেলছেন। আর ইংল্যান্ডের পেস বান্ধব পিচে তার আগ্রাসী ব্যাটিং কার্যকর হবে তা নিয়ে সন্দেহ নেই। তার স্ট্রাইক রেটও (৭৯.৭৪) ইমরুলের চেয়ে ভালো (৭১.১০)। আবার এদিক থেকে সৌম্য অনেক এগিয়ে তার স্ট্রাইক রেট ৯০-এর বেশি।

কিন্তু ক্রিজে টিকে থাকাও তো বড় লড়াই। প্রায়ই দেখা যায় বাংলাদেশের টপ অর্ডার ব্যর্থ হলে লাইনআপের বাকি অংশ হুড়মুড় করে ভেঙে পড়ে। সেক্ষেত্রে ইমরুলের মতো একজন অভিজ্ঞ ও তুলনামূলক ধৈর্যশীল ব্যাটসম্যান কার্যকর প্রতীয়মান হতেন। সাব্বির রহমানকে দলে নেওয়া নিয়ে এমনিতেই প্রশ্ন দেখা দিয়েছে। অধারাবাহিকতার অনন্য নজির সাব্বির। তারপরও তার জায়গা হয়, ইমরুলের হয় না।

তবে বিশ্বকাপ স্কোয়াডে জায়গা না পেলেও ত্রিদেশীয় সিরিজে রয়েছেন ইমরুল কায়েস।এই ১৫ জন সহ আয়ারল্যান্ড সিরিজ এর যোগ হচ্ছে আরও দুই ক্রিকেটার তারা হলেন তরুণ দুই ক্রিকেটার ইয়াসির আলি এবং স্পিনার নাঈম হাসানঅপেনার ইমরুল কায়েস।

ত্রিদেশীয় সিরিজ স্কোয়াডঃমাশরাফি বিন মর্তুজা, তামিম ইকবাল,ইমরুল কায়েস, সাকিব আল হাসান, মুশফিকুর রহিম, মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ, রুবেল হোসেন, মোহাম্মদ মিঠুন, মুস্তাফিজুর রহমান, লিটন দাস, সাব্বির রহমান, মেহেদী হাসান মিরাজ, সৌম্য সরকার, মোহাম্মদ সাইফুদ্দিন, আবু জায়েদ রাহি, মোসাদ্দেক হোসেন সৈকত, ইয়াসির আলী।

সুত্রঃ সিটি২৪নিউজ 

১৪ মে,১৯৯৯ বাংলাদেশ ক্রিকেট ইতিহাসের সেরা দিন

এইমাত্র বিসিবি থেকে বিশাল সুখবর পেল "ইমরুল কায়েস"

চমক দিয়ে দল ঘোষণার সমস্ত হিসাব পাল্টে দিল পাপন। সৌম্য, লিটন, সাব্বিরের ১ ম্যাচ ভালো তো ১০ ম্যাচ খারাপ...

ভোরে নয় বাংলাদেশ সময় অনুযায়ী ত্রিদেশীয় সিরিজ যখন শুরু হবে

বিশ্বকাপের ১০ দেশের আনলাকি স্কোয়াড দেখেনিন

‘যখন শুনেছি ১৫ জনের মধ্যে আছি তখন আরেকটু বেশিই অবাক হয়েছি’

বিশ্বকাপ শুরুর আগেই ইংল্যান্ড থেকে যে বিশাল দুঃসংবাদ পেল বাংলাদেশ

লিটন না সৌম্য? বিশ্বকাপে তামিমের সঙ্গী কে? জানালেন কোচ স্টিভ রোডস!

দুইটি চমক দিয়েই বিশ্বকাপের জন্য বাংলাদেশের ১৫ সদস্যের স্কোয়াড ঘোষণা করলো বিসিবি !

চমক দিয়ে ত্রিদেশীয় সিরিজের জন্য উইন্ডিজের বিপক্ষে বাংলাদেশের দল ঘোষণা করলো বিসিবি !

নিজ মুখে জানিয়ে দিলেন বিশ্বকাপে যাদেরকে দলে চান তামিম ইকবাল